কোরবানীর পশু

From Sunnipedia
Jump to: navigation, search

গরু, মহিষ, উট, ছাগল, ভেড়া ও দুম্বা ইত্যাদি চতুষ্পদ হালাল গৃহপালিত পশু দ্বারা কোরবানী করা জায়েয। অংশীদারিত্বে কোরবানীর নিয়ম গরু, মহিষ ও উট এ তিন প্রকার পশুর প্রত্যেকটিতে এক হতে সাতজনের নামে কোরবানী করা যায়। তবে শর্ত হল সব ক’টি অংশ শুধুমাত্র আল্লাহর ওয়াস্তে হতে হবে; নিছক মাংস খাওয়ার খেয়ালও থাকতে পারবে না। এক পশুতে কয়েকজন শরীক থাকলে, গোশ্ত পাল্লা দিয়ে ওজন করে সমপরিমাণে ভাগ করে নিতে হবে। কোন শরীকদার বেশী পেয়ে থাকলে অন্যরা মাফ করে দিলেও কারো কোরবানী বৈধ হবে না।সম্মিলিত কোরবানীর পশু ক্রয় করার পর তাতে ভাগ বা অংশ অবশিষ্ট থাকলে অন্য লোককে শামিল করতে কোন অসুবিধা নেই। কেউ একা কোরবানী করার মানসে পশু ক্রয় করলেও তাতে অন্যকে শরীক করতে পারবে। তবে ক্রয় করার পূর্বে ভাগগুলো ঠিক করে নেয়া উত্তম; অন্যথায় মাকরূহ।

কোরবানীর পশুর বয়স

কোরবানীর ছাগল কমপক্ষে ১ বছর, গরু ২ বছর এবং উট ৫ বছর বয়সের হতে হবে। কোরবানীর জন্য সুন্দর ও নিখুঁত জন্তু বাছাই করা উত্তম। যেসব জন্তু অন্ধ ও এমন খোঁড়া যে, যবেহ করার স্থানে যেতে অক্ষম, শিং ভাঙ্গা, লেজ এবং কান কাটা বা দুর্বল ইত্যাদি পশু কোরবানীর উপযুক্ত নয়।

তথ্যসূত্র

  • মাসিক তরজুমান হিজরী ১৪৩৫ জিলহজ্জ