গোছলের ফরজ ও ওয়াজিব

From Sunnipedia
Jump to: navigation, search

গোছলের ৩ টা ফরজ

১। গড়গড়া করে কুলি করা
২। নাকের শক্ত হাড় পর্যন্ত পানি পৌঁছান
৩। মাথা থেকে পা পর্যন্ত সমপূর্ন শরীর পানি দিয়ে একবার ধুয়ে ফেলা।

গোছলের ৫টি ওয়াজিব

১। মেয়েলোকের চুল খোলা থাকলেও চুলের গোড়ায় পানি প্রবেশ করানো।
২। বেণী বাধা থাকলে উহার মধ্যে পানি প্রবেশ করানো।
৩। চুলে গাঢ় কিছু লাগানো থাকলে তা তুলে পানি প্রবেশ করানো। না তুললে যদি পানি প্রবেশ করে তবে তোলার দরকার নেই।
৪। নাকফুল বা আংটি ঢিলা না থাকলে তার মধ্যে পানি প্রবেশ করানো।
৫। স্ত্রী অঙ্গের বাহির অংশে পানি পৌছানো।
মেয়েরা বিশেষভাবে মনে রাখুনঃ

সকালের দিকে গোছল করলে শরীর ও মন সুস্থ থাকে। রোগ পীড়া কম হয়। বিকালের দিকে গোছল করলে চুল ভিজা থাকে, চুল শুকায়না। ভিজা অবস্থায় চুল বাধলে চুলের ভিজা মাথায় বসে যায় ও ঠান্ডা লেগে সর্দ্দি হয়, মাথা ধরে, মাথার যন্ত্রনা হয়। অল্প দিনে হাঁচি ও মাথার রোগে আক্রান্ত হয়। হাজার হাজার টাকা ব্যয় করেও তখন রোগ নিরাময় হয়না। মেয়েরা প্রতিদিন গোছলের পরে অবশ্য চুল শুকিয়ে নিয়ে চুল বাধবে। গোছলের পর চুল শুকিয়ে নেয়া যায় এমন সময় গোছল করবে। তা হলে মাথার রোগ যন্ত্রনা থেকে বাচতে পারবে।

তথ্যসূত্র

  • নামাজ প্রশিক্ষণ (লেখকঃ মাহবুবুর রহমান, প্রাক্তন উপাধ্যক্ষ, প্রতাপনগর আবূবকর সিদ্দিক ফাজিল মাদ্রাসা, সাতক্ষীরা)