জায়গা পাক

From Sunnipedia
Jump to: navigation, search
  • ঘরে বা নির্দিষ্ট কোন মাটির মেঝেয় নামাজ পড়ার ইচ্ছা করলে পাক মাটি দিয়ে লেপে নিন। গোবর বা কোন নাপাক বস্তু দিয়ে লেপবেন না।
  • পাকা স্থান পানি দিয়ে ধুয়ে পরিস্কার করুন।
  • শুকনা মাটিতে তরল জাতীয় নাপাকী পড়ে শুকিয়ে গেলে উক্ত জায়গাকে পাক মনে করুন। যদি গন্ধ থাকে তাহলে নাপাক।
  • তরল নাপাকী যদি ভিজা থাকে তবে প্রথমে পানি ঢালুন, ঝাড় বা অন্য কিছু দিয়ে ঐ পানি সরিয়ে দিন। দ্বিতীয় বার পানি ঢেলে সরিয়ে ফেলুন। তৃতীয় বার পানি ঢেলে সরিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে নামাজ পড়ুন।
  • মাঠে বা অন্য কোথাও নামাজ পড়ার ইচ্ছা করলে সেখানে যদি শুকনা গোবর বা অন্য কোন শুকনা নাপাকি থাকে তবে তা সরিয়ে নামাজ পড়ুন। ভিজা থাকলে তার উপর নামাজ পড়বেন না। পড়লে নামাজ হবে না।
  • এমন শুকনা জায়গা যেখানে কাপড় বিছালে কাপড়ে জায়গার ছাপ না লাগে সেখানে কাপড় বিছিয়ে নামাজ পড়–ন। যদি কাপড়ে ছাপ লাগে এবং উহা নাপাকীযুক্ত হয় তবে উক্ত কাপড়েও নামাজ হবে না।
  • পথে ঘাটে বা মাঠে নামাজ পড়ার সময় যদি দুপায়ের নীচে (রূপার) এক গোল টাকা পরিমানের বেশী নাপাকী দেখা যায় তবে নামাজ ফাছেদ হবে।
  • ছেজদার সময় দু’হাটু ও দু’হাতের নীচে নাপাকী থাকলে নামাজ হবে না।
  • তেমনি দুপায়ের নীচের এবং সেজদার স্থানের নাপাকী একসাথে মিলালে এক গোল টাকা পরিমানের বেশী হলেও নামাজ ফাছেদ হবে।
  • বিছানার কোন স্থানে নাপাকী লাগলে যদি তা ঠিক না পাওয়া যায় তবে যেখানে পাক বলে মনে হয় সেখানে দাড়িয়ে নামাজ পড়ুন।
  • নামাজে দাড়িয়ে ছেজদার সময় ছেজদার স্থানে শুকনা নাপাকী দেখলে যদি নাক পাক স্থানে রাখা সম্ভব হয় তবে কপাল না ছোয়ায়ে শুধু নাক দিয়ে ছেজদা করুন। যদি নাক ও কপাল উভয় স্থানে শুকনা নাপাকী থাকে তবে নাক বাদ দিয়ে শুধু কপাল দিয়েই (নাপাকীর উপরেই) ছেজদা করুন। পাশে পাক জায়গা থাকলে না দেখে নামাজে দাড়ালে গোনাহ হবে।
বিশেষভাবে লক্ষ্য রাখুনঃ
ক) লোক চলাচলের রাস্তায়, যেখানে পেশাব পায়খানা ফেলা হয় তার ধারে, জবেহ স্থানের পাশে, কবর স্থানে, গোছলখানায়, মাঠের নিচু স্থানের দিকে, পশুর বিশ্রাম স্থানে, বাথরুমে ও পায়খানা ঘরের ছাদের উপরে, গর্তের মধ্যে, জানা অবস্থায় জুলুম করে নেয়া জমিতে, ক্ষেতের ফসলের উপরে এবং জানামতে অমুসলিমের জমিতে নামাজ পড়া মাকরুহ।
খ) নামাজের কাপড় বিছিয়ে নামাজ পড়লে যদি দু পাল্লা এক সাথে সেলাই থাকে তবে নীচের পাল্লায় নাপাক থাকলেও নামাজ বাতেল হবে। ১৩
গ) নাপাকের ওপর বিছানা বিছিয়ে নামাজ পড়লে যদি নাপাকের রং বা গন্ধ পাওয়া যায় তবে নামাজ বাতেল হবে। ১৪
ঘ) সেলাই বিহীন দোপাল্লার নিচের পাল্লায় নাপাক লাগলে নাপাকীর রং দেখলে বা গন্ধ পেলে নামাজ বাতেল হবে। নাপাকীর রং না দেখলে বা গন্ধ না পেলে বাতেল হবে না।
ঙ) নাপাক জায়গা বা বিছানার উপর পাতলা কাপড় বিছালে যদি নাপাক দেখা যায় বা গন্ধ বোঝা যায় তবে নামাজ বাতেল হবে।

তথ্যসূত্র

  • নামাজ প্রশিক্ষণ (লেখকঃ মাহবুবুর রহমান, প্রাক্তন উপাধ্যক্ষ, প্রতাপনগর আবূবকর সিদ্দিক ফাজিল মাদ্রাসা, সাতক্ষীরা)